গোপীনাথ পুকুর দখলমুক্ত করতে ব্যবস্থা নেয়া হচেছ ॥ টমটম ভাড়া ৫ টাকা বহাল থাকবে ॥ পৌরপরিষদের বিশেষ সভায় সিদ্ধান্ত ॥

অস্বচ্ছল পরিবারের কলেজ ছাত্রকে বই উপহার দিয়েছেন হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ।

মাছুলিয়া এলাকায় ভানু দত্তের বাড়ী কালীমন্দিরের সংস্কারের জন্য ১০ হাজার টাকা অনুদান দিয়েছেন মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ।

জাতীয় স্যানিটেশন সপ্তাহ উপলক্ষে হবিগঞ্জ পৌরসভার বনাঢ্য র‌্যালী পালিত।

জাতীয় কৃমি নিয়ন্ত্রন সপ্তাহ উপলক্ষে এডভোকেন্সী সভায় বক্তব্য রাখছেন মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ।

 

এক নজরে হবিগঞ্জ পৌরসভা

হবিগঞ্জ পৌরসভা ভবন

হবিগঞ্জ পৌরভবন

হবিগঞ্জ পৌরসভার ইতিহাস অত্যন্ত সমৃদ্ধ। কথিত আছে জমিদার হেদায়েতুল্লার দুই পুত্র হবিবুল্লা এবং আতাউল্লা, হবিবুল্লা কর্তৃক স্থাপিত বাজার “হবিগঞ্জ”ই পরবর্তীতে হবিগঞ্জ শহরে রূপন্তরিত হয়।
১৮৮১ সালে যে, ‘টাউন কমিটি’ মাত্র আধা বর্গমাইল এলাকা ও ১৫০টি হোল্ডিং এবং ২ হাজার ১শত ৫ জন পৌরবাসী নিয়ে যাত্রা শুরু করে, কালের আবর্তন বিবর্তনের মাধ্যমে কবর্তমানে ৯.০৫ বর্গকিলোমিটার আয়তনে তা প্রায় এক লাখ লোকের স্বপ্নের আবাসস্থল, একটি আধুনিক শহরে পরিণত হয়েছে।
হবিগঞ্জ পৌরসভা প্রতিষ্ঠার তারিখ- ১৮৮১ খ্রীঃ। হবিগঞ্জ পৌরসভার আয়তন- ৯.০৫ বর্গ কিলোমিটার। হবিগঞ্জ পৌরসভার শ্রেণী- প্রথম শ্রেণী। হবিগঞ্জ পৌরসভা এলাকার লোকসংখ্যা-৯৫,০০০ জন (প্রায়)। হবিগঞ্জ পৌরসভার ওয়ার্ড নং- ৯ (নয়)। মেয়র ও কাউন্সিলর গণের সংখ্যা- মেয়র ১ জন, কাউন্সিলর ৯ জন, মহিলা কাউন্সিলর ২ জন। পদত্যাগকারী মহিলা কাউন্সিলর ১জন মোট- ৩ জন। সর্বশেষ পৌরসভা নির্বাচন হয়-    ০৯.০৫.২০০৪ ইংরেজী। কর্মকর্তা ও কর্মচারীর সংখ্যা-৭১ জন। দৈনিক শ্রমিক ও সুইপারের সংখ্যা-    ১২০ জন। পৌর এলাকার ভোটার সংখ্যা- ৩৭,৯৯৭ জন, পুরুষ ১৯০৪২ জন, মহিলা ১৮৯৫৫ জন।   বিস্তারিত

Design & Developed By PopularServer.Com