Category Archives: উন্নয়নের কর্মকান্ড

সমুদয় পৌরকর পরিশোধ করায় জেলা প্রশাসক মনীষ চাকমাকে মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছের ফুলেল শুভেচ্ছা

হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসনের সমুদয় পৌরকর পরিশোধ করায় জেলা প্রশাসক মনীষ চাকমাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়েছেন হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ। বুধবার বিকেলে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে মেয়রের প থেকে জেলা প্রশাসকের হাতে ফুলের তোড়া উপহার দেন হবিগঞ্জ পৌরসভার সচিব মোহাম্মদ নূরে আলম সিদ্দিকী। এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক মোঃ শফিউল আলম, হবিগঞ্জ পৌরসভার কর আদায়কারী ইসরাত জাহান নীলা ও উপসহকারী প্রকৌশলী দিলীপ কুমার দত্ত। উল্লেখ্য জেলা প্রশাসনের প হতে ২০১৭-১৮ অর্থবছরের সমুদয় পৌরকর ৫ লাখ ১৮ হাজার ৬ শ ৪৭ টাকা পরিশোধ করা হয়।

Share on Facebook

পৌরএলাকার দারিদ্র নিরসন ও জীবনমান উন্নয়নে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে ॥

‘সিডিসি’র নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় সভায় মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ  হবিগঞ্জ পৌরসভার কমিউনিটি ডেভেলপম্যান্ট কমিটি ‘সিডিসি’র নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় করেছেন মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ। সোমবার দুপুরে পৌরভবনের হলরুমে ফেডারেশন, ক্লাষ্টার ও সিডিসি’র সভাপতি, সম্পাদক ও সদস্যদের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত হয় মতবিনিময় সভা। হবিগঞ্জ পৌরসভার আয়োজনে এ মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তব্য রাখেন মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ। মেয়র বলেন ফেডারেশন, ক্লাষ্টার ও সিডিসি’র সাংগঠনিক তৎপরতা আরো জোরদার করার মধ্য দিয়ে সেবামুলক কর্মকান্ডকে এগিয়ে নিতে হবে। তিনি বলেন কমিটির বিভিন্ন দায়িত্বে যারা রয়েছেন তাদের সকলকে নিজ নিজ অবস্থানে থেকে পৌরএলাকায় দারিদ্র নিরসন, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে সচেতনতা সৃষ্টিসহ নাগরিক জীবনমান উন্নয়নে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যেতে হবে। সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পৌরকাউন্সিলর মোঃ আবুল হাসিম, গৌতম কুমার রায়, শেখ নূর হোসেন, অর্পনা পাল, পৌরসচিব মোহাম্মদ নূরে আলম সিদ্দিকী এবং ফেডারেশন, ক্লাষ্টার ও সিডিসি’র নেতৃবৃন্দ।

Share on Facebook

অবৈধস্থাপনা উচ্ছেদ ও ফুটপাত দখলমুক্ত করতে হবিগঞ্জ পৌরসভার অভিযান

হবিগঞ্জ শহরের অবৈধস্থাপনা উচ্ছেদ ও ফুটপাত দখলমুক্ত করতে অভিযান চালিয়েছে হবিগঞ্জ পৌরসভা। সোমবার সকালে হবিগঞ্জ পৌরসভার একটি টিম ফুটপাত দখলমুক্ত রাখতে অভিযান পরিচালনা করে। শহরের বেবীষ্ট্যান্ড, থানা ক্রস রোড, সার্কিট হাউজ রোড ও জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনের রাস্তায় এ অভিযান চলে। অভিযান চলাকালে রাস্তার দু’পাশে ফুটপাতে অবৈধ দোকানপাট উচ্ছেদ করা হয়। হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ বলেন শহরের সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি , সরকারী সম্পত্তি রক্ষা, পথচারীদের চলাচলের সুবিধা করে দেয়া, জলাবদ্ধতা মুক্তকরণ, যানজট নিরসন তথা শহরের শৃংখলা বজায় রাখতে পৌরপরিষদের সিদ্ধান্ত মোতাবেক এ অভিযান শহরের বিভিন্ন এলাকায় নিয়মিত পরিচালনা করা হবে।

Share on Facebook

ইউজিপ-৩ এর প্রত্যাশা অনুযায়ী নাগরিক সচেতনতা বৃদ্ধিতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখছে হবিগঞ্জ পৌরসভার ওয়ার্ড ভিত্তিক উঠান বৈঠক- মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ

হবিগঞ্জ পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ডে অনুষ্ঠিত হয়েছে জনসচেতনতামুলক উঠান বৈঠক। রবিবার বিকেলে গোসাইপুর এলাকায় কাউন্সিলর শেখ নুর হোসেনের বাসভবন প্রাঙ্গনে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। হবিগঞ্জ পৌরসভায় বাস্তবায়নাধীন তৃতীয় নগর পরিচালন ও অবকাঠামো উন্নতিকরণ (সেক্টর) প্রকল্পের আওতায় জেন্ডার এ্যাকশন প্ল্যান বাস্তবায়নের ল্েয নিয়মিত কর্মসূচীর ধারাবাহিকতায় আয়োজিত হয় এ বৈঠক। বৈঠকে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ। প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ স্থানীয় সরকার কর্মকান্ডে নারীদের ব্যাপক অংশ গ্রহনের ব্যাপারে গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন হবিগঞ্জ পৌরসভা স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার মাধ্যমে জনকল্যাণমুলক কর্মসূচী পরিচালনা করে আসছে। মেয়র হবিগঞ্জ পৌরসভার সেবামুলক কর্মকান্ডের ব্যাপারে নাগরিকবৃন্দের সচেতনতা সৃষ্টিতে সবাইকে কাজ করা আহবান জানান। উঠান বৈঠকের মাধ্যমে তৃনমূল পর্যায়ে নাগরিক সচেতনতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। এছাড়াও হবিগঞ্জ পৌরসভার উন্নয়নমুলক কর্মকান্ড, জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন, পৌরকর পরিশোধ, ইভটিজিং রোধ, পরিচ্ছন্নতা, বাল্যবিবাহ রোধ ইত্যাদি বিষয়ে আলোচনা করেন মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ। ৪, ৫ ও ৬ নং ওয়ার্ডের সংরতি মহিলা পৌরকাউন্সিলর খালেদা জুয়েলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উঠান বৈঠকে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পৌরকাউন্সিলর শেখ নূর হোসেন। উপস্থিত ছিলেন হবিগঞ্জ পৌরসভার স্যানেটারী ইন্সপেক্টর অবনী কুমার দাসসহ হবিগঞ্জ পৌরসভা তথা ইউজিআইআই প্রকল্পের কর্মকর্তাবৃন্দ। উল্লেখ্য ইউজিআইআইপি-৩ প্রকল্পের প্রত্যাশা অনুযায়ী প্রতিটি ওয়ার্ডের ধারাবাহিকতায় ৬নং ওয়ার্ডে উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

Share on Facebook

পৌরঘাটলায় হবিগঞ্জ পৌরসভাকে শারদীয় দূর্গাপূজার প্রতিমা বিসর্জনের অনুষ্ঠান আয়োজন করতে না দেওয়ায় পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিন্দা ॥

পৌরঘাটলায় হবিগঞ্জ পৌরসভাকে শারদীয় দূর্গাপূজার প্রতিমা বিসর্জনের অনুষ্ঠান আয়োজন করতে না দেওয়ায় হবিগঞ্জ পুলিশ প্রশাসনের অযাচিত হস্তেেপর নিন্দা জানিয়েছেন পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ। সোমবার সকালে হবিগঞ্জ পৌরভবনে অনুষ্ঠিত এক সভায় এ নিন্দা জানানো হয়। সভায় বিভিন্ন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বলেন, হবিগঞ্জ পৌরসভা দেশের অন্যতম প্রাচীনতম পৌরসভা যার প্রতিষ্ঠা হয় ১৮৮১ সালে। প্রাচীনতম পৌরসভা হওয়া সত্ত্বেও এ পৌরসভায় সনাতন ধর্মালম্বীদের শারদীয় দূর্গাপূজা উৎসবে প্রতিমা বিসর্জনের কোন নির্ধারিত স্থান বা ঘাটলা ছিল না। প্রতিমা বিসর্জনের নির্ধারিত স্থান না থাকায় পৌর এলাকার সনাতন ধর্মাবলম্বী নাগরিকবৃন্দকে ভোগান্তি পোহাতে হত। এ ভোগান্তি লাঘবের জন্য ২০০৯ সালে হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছের নেতৃত্বে পৌর পরিষদ খোয়াইমুখে পৌর ঘাটলা নির্মানের উদ্যোগ নেয়। সে অনুযায়ী পৌরসভার নিজস্ব তহবিল হতে ১৫ ল টাকা ব্যয়ে ঐ স্থানে “পৌর ঘাটলা” বাস্তবায়ন করা হয়। তারপর থেকে প্রতি বৎসর উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে পৌর ঘাটলায় প্রতিমা বিসর্জনের ব্যবস্থাপনা করে আসছে হবিগঞ্জ পৌরসভা।  প্রতি বছরের মত এবারও বিজয়া দশমীর তিনদিন পূর্ব থেকে ঘাটলায় পরিচ্ছন্নতা কাজ সহ অন্যান্য প্রস্তুতিমূলক কাজ করে হবিগঞ্জ পৌরসভা। দুঃখ জনক হলেও সত্যি, বিজয়া দশমীর দিন সকালে এই ঘাটলায় পৌরসভাকে প্রস্তুতিমূলক কাজ করা থেকে বিরত রাখে হবিগঞ্জের পুলিশ। পৌরসভাকে প্রতিমা বিসর্জনের ব্যবস্থা করতে না দেওয়া এবং এহেন দুঃখ জনক পরিস্থিতির সৃষ্টি করায় পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ নিন্দা প্রকাশ করেছেন। ভবিষ্যতে এহেন কর্মকান্ডহতে বিরত থাকার জন্য হবিগঞ্জের পুলিশ প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

Share on Facebook

পৌরসভার মেয়র জি, কে গউছ ও কাউন্সিলরদের একমাসের সম্মানীভাতা ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ১ দিনের বেতন বিপন্ন রোহিঙ্গা জনগনের সাহায্যে দেয়ার সিদ্ধান্ত

পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ ও কাউন্সিলরদের একমাসের সম্মানীভাতা ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ১ দিনের বেতন বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া বিপন্ন রোহিঙ্গা জনগনের সাহায্যে অনুদান দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে হবিগঞ্জ পৌরসভা। সোমবার হবিগঞ্জ পৌরভবনে মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত পৌরপরিষদের মাসিক সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র ও কাউন্সিলরদের একমাসের সম্মানীভাতা ৮০ হাজার টাকা এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীদের একদিনের বেতন ৩৫ হাজার ৫ শ ৭২ টাকাসহ একত্রে ১ লাখ ১৫ হাজার ৫ শ ৭২ টাকা অনুদান দেয়া হবে। সভায় মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ ও কাউন্সিলর দীলিপ দাস রোহিঙ্গাদের সাহায্যে অনুদান দেয়ার কথা প্রস্তাব করলে পৌরকাউন্সিলর ও কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দের সমর্থনে তা সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত হিসেবে গ্রহন করা হয়। সভায় মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর উপর চালানো গণহত্যার নিন্দা জানানো হয়। সাথে সাথে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া বিপন্ন রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর পাশে দাঁড়ানোর জন্য সকলের প্রতি আহবান জানানো হয়। অনুদানের টাকা দ্রুততম সময়ের মধ্যে কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের কাছে প্রেরন করা হবে বলে সভায় জানানো হয়।#

Share on Facebook

শহরের শায়েস্তানগর আবাসিক এলাকায় আরসিসি রাস্তা ঢালাই কাজের উদ্বোধন করেছেন মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ

হবিগঞ্জ পৌরসভার শায়েস্তানগর আবাসিক এলাকায় আরসিসি রাস্তা ঢালাই কাজের উদ্বোধন করেন মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ। সোমবার সকালে মেয়র শায়েস্তানগর আবাসিক এলাকায় যান। হবিগঞ্জ পৌরসভার নিজস্ব অর্থায়নে ওই এলাকায় আরসিসি রাস্তা নির্মাণ কাজ বাস্তবায়িত হচ্ছে। মেয়র ওই কাজের ঢালাইয়ের কাজ উদ্বোধন করেন। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন কাউন্সিলর শেখ মোঃ উম্মেদ আলী শামীম, উপসহকারী প্রকৌশলী দিলীপ দত্ত ও এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচীর আওতায় হবিগঞ্জ পৌরসভা ৯ লাখ ২০ হাজার টাকা ব্যয়ে এ আরসিসি রাস্তা নির্মান কাজ বাস্তবায়িত হচ্ছে। এ রাস্তা নির্মাণ হলে ওই এলাকার দীর্ঘদিনের ভোগান্তির অবসান হবে।

Share on Facebook

ছাত্র/ছাত্রীদের মাঝে বই বিতরন করেছেন হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ

হবিগঞ্জ পৌরএলাকার অস্বচ্ছল পরিবারের ছাত্রছাত্রীদের মাঝে বই বিতরন করেছেন হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ। মঙ্গলবার পৌরভবনে মেয়র ছাত্রছাত্রীদের হাতে বই তুলে দেন। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন পৌর কাউন্সিলর মোহাম্মদ জুনায়েদ মিয়া, গৌতম কুমার রায়, শেখ নূর হোসেন, পৌর সচিব মোহাম্মদ নূরে আলম সিদ্দিকীসহ অন্যান্যরা।

Share on Facebook

বস্তি উন্নয়নে ত্রিপীয় চুক্তি স্বাক্ষর করেছেন হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ

বস্তি উন্নয়ন কার্যক্রম বাস্তবায়নের লক্ষে ত্রিপীয় চুক্তি স্বাক্ষর করেছেন হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ। বস্তি উন্নয়ন কার্যক্রম বাস্তবায়নের লক্ষে মেয়র, জমির মালিক ও এসআইসি কমিটির সভাপতির মধ্যে ত্রিপীয় চুক্তি সম্পাদনের লক্ষে এক সভা মঙ্গলবার সকালে পৌরভবনের সভাকে অনুষ্ঠিত হয়। চুক্তি সম্পাদন সভায় মেয়র বলেন পৌরএলাকার বস্তিসমূহের অবকাঠামো উন্নয়ন এবং বস্তি এলাকার নাগরিকদের জীবনমান উন্নয়নে হবিগঞ্জ পৌরসভা সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন পৌরকাউন্সিলর মোহাম্মদ জুনায়েদ মিয়া, শেখ নূর হোসেন ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ।

Share on Facebook

খোয়াইমুখ এলাকায় আরসিসি রাস্তা ঢালাই কাজ উদ্বোধন করেছেন মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ

হবিগঞ্জ শহরের খোয়াইমুখ এলাকায় আরসিসি রাস্তা ঢালাই কাজ উদ্বোধন করেছেন মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ। সোমবার সকালে মেয়র ৪ নং ওয়ার্ডের খোয়াই মুখ এলাকা বাঁশবাজার এর পাশে ঢালাই কাজ উদ্বোধনের জন্য যান। ওই এলাকার বাসিন্দাদের দাবীর প্রেেিত পৌরসভা নিজস্ব তহবিলের অর্থায়নে আরসিসি রাস্তার কাজ বাস্তবায়ন করছে। উদ্বোধনকালে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পৌরকাউন্সিলর মোহাম্মদ জুনায়েদ মিয়া, খালেদা জুয়েল, পৌরসভার প্রকৌশলীবৃন্দ ও এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

Share on Facebook