বর্তমান মেয়র

পৌর মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছের পরিচিতি

 

index.png 14

মেয়র আলহাজ্ব জি কে গউছ

হবিগঞ্জ শহরের উন্নয়নের স্বার্থে যে মহুর্তে বলিষ্ঠ নেতৃত্বের প্রয়োজনীয়তা দেখা দিয়েছি, ঠিক সেই মহুর্তেই এগিয়ে আসেন হবিগঞ্জের তরুণ সমাজসেবক দানশীল ব্যক্তিত্ব বিএনপি নেতা আলহাজ্ব জি, কে গউছ। তিনি জীবনের প্রথম নির্বাচনে অংশ নিয়েই জনগণের প্রত্যক্ষ ভোটে হবিগঞ্জ পৌরসভার প্রথম মেয়র।
হবিগঞ্জ শহরের শায়েস্তানগর এলাকার স্থায়ী বাসিন্দা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজসেবক মরহুম আলহাজ্ব গোলাম মর্তুজা লাল মিয়া ও মরহুমা আলহাজ্ব মঞ্জিলা বেগমের জ্যেষ্ঠ পুত্র জি, কে গউছ ১৯৬৮ সনে জন্মগ্রহণ করেন। হবিগঞ্জ তার প্রিয় শহর। ১৯৮৪ সনে এসএসসি পাশ করে ভর্তি হন বৃন্দাবন সরকারি কলেজে। বৃন্দাবন কলেজে ভর্তি হওয়ার পরপরই তার উপর জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কলেজ শাখার সারণ সম্পাদকের দায়িত্ব অর্পিত হয়। পড়াশোনার পাশাপাশি জি,কে গউছ -এর মধ্যে বলিষ্ঠ নেতৃত্বের প্রতিভা ফুটে উঠে এবং তার নেতৃত্বে বৃন্দাবন কলেজে ছাত্রদল সুসংগঠিত রূপ লাভ করে। এই বলিষ্ট নেতৃত্বের স্বীকৃতি হিসেবে ১৮৯৮৭ সনে তাকে ছাত্রদল হবিগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতির দায়িত্ব প্রদান করা হয়। পরবর্তীতে’৯০ সনে আবারও তিনি ছাত্রদলের কাউন্সিলে সভাপতি পদে নির্বাচিত হয়ে ’৯৩ সন পর্যন্ত এ দায়িত্ব পালন করেন।’৮৮ সন থেকে একটানা ৫বছর তিনি ছাত্রদল কেন্দ্রীয় কিমিটির সদস্য হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। ’৯৪ সনে তিনি হবিগঞ্জ পৌর যুবদলের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। ’৯৫ সনে জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক এবং ’৯৬ সনে কেন্দ্রীয় যুবদলের সদস্য হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। অত্যন্ত যোগ্যতার সাথে দায়িত্ব পালন করে সারা জেলায় যুবদলকে সুসংগঠিত করে তুলেন। এরই ফলস্বরূপ ২০০৩ সনের এপ্রিলে জেলা যুবদলের সহ-সমবায় সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পান। আলহাজ্ব জি, কে গউছ-এর বলিষ্ট নেতৃত্বের কারণে বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ন মহাসচিব জনাব তারেক রহমান-এর উপস্থিতিতে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে হবিগঞ্জের সকল থানা, পৌর ও জেলা আহ্বায়ক কমিটির সভাপতি/সধারণ সম্পাদকের গোপন ভোটে তিনি হবিগঞ্জ জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন ও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য। তিনি অত্যন্ত সফলতার সাথে এ দায়িত্ব পালন করছেন।
বিএনপি’র সরকারের সময়ে প্রয়াত অর্থমন্ত্রী মরহুম জনাব এম, সাইফুর রহমান-এর সাথে অত্যন্ত সুসম্পর্ক ও তৎকালীন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী-উপমন্ত্রীগণের সাথে ব্যক্তিগত সম্পর্ক থাকার কারণে পৌর চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পূর্বেই আলহাজ্ব জি, কে গউছ হবিগঞ্জে ব্যাপক উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করেন। পৌর চেয়াম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর তিনি সরকারিভাবে ভিয়েতনাম, থাইল্যান্ড, তুরস্ক, বাহরাইন, ওমান, সিঙ্গাপুর ও ফিলিপাইন সফর করেন। এসব দেশ সফরকারে তিনি স্থানীয় সরকারের সাথে কেন্দ্রীয় সরকারের সম্পর্ক, তাদের উন্নয়মূলক কর্মকান্ড, শিক্ষাক্ষেত্রে অগ্রগতি, যোগাযোগ, স্বাস্থ্য, চিকিৎসা, বাসস্থানসহ নানাবিদ বিষয়ে অভিজ্ঞতা অর্জন করেন। তাদের অগ্রগতি সম্পর্কে মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ যে সম্যক জ্ঞান লাভ করেছেন তা হবিগঞ্জে প্রয়োগের মাধ্যমে শহরবাসীর নাগরিক জীবন-যাত্রার মান বৃদ্ধিতে কাজে লাগিয়েছেন। বিদেশ সফরের অভিজ্ঞতার আলোকে তিনি সিডিসি’র মাধ্যমে হবিগঞ্জ শহরকে পচ্ছিন্ন করার উদ্যোগ নিয়েছেন। পৌর মেয়র আলহাজ্ব জি, কে গউছ তুরস্কে শান্তি সম্মেলনেও যোগ দেন। এ শান্তি সম্মেলনের উদ্বোধন করেছিলেন জাতিসংঘের তৎকালীণ মহাসচিব কফি আনান।
আলহাজ্ব জি, কে গউছ অত্যন্ত ধার্মিক পরিবারের সন্তান। তার পিতা-মাতা, স্ত্রী সন্তানরাও পবিত্র হজ্বব্রত ও ওমরাহ্ পালন করেছেন। জি কে গউছ ২০০২ সন থেকে বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি হবিগঞ্জ ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। রেডক্রিসেন্টের যাবতীয় সাহায্য সামগ্রী তিনি দরিদ্র মানুষের মধ্যে অত্যন্ত সুষ্ঠুভাবে বন্টন করে ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়েছেন। তিনি পৌর চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পূর্বে ব্যক্তিগত তহবিল থেকে বিভিন্ন মসজিদ-মাদ্রাসা, শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনকে আর্থিক সাহায্য দিয়ে পৃষ্ঠপোষকতা করেছেন। অসহায়-দরিদ্র এবং কন্যাদায়গ্রস্ত পরিবারকে তিনি ব্যক্তিগত তহবিল থেকে আর্থিক সাহায্য করেছেন।  নির্বাচনী ওয়াদা অনুযায়ী পৌর চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর আলহাজ্ব জি, কে গউছ নিজের সম্মানী ভাতার টাকা কন্যাদায়গ্রস্ত পরিবারের সাহায্যার্থে দান করছেন। এ পর্যন্ত তিনি পৌরসভার তহবিল থেকে ব্যক্তিগত খরচের জন্য কোন অর্থ নেননি। এমনকি নিজের আপ্যায়ন ব্যয় তিনি ব্যক্তিগতভাবে করে থাকেন। অর্থাৎ আলহাজ্ব জি, কে গউছ -এর দৃঢ় অঙ্গীকার পৌরসভার অর্থ বা সম্পদ তিনি বা তার পরিবার ভোগ করবে না। বর্তমান পর্যন্ত তিনি এ অঙ্গীকার মেনে চলছেন। সুশাসন ও অবকাঠামোগত উন্নয়নের জন্য এডিবি ও এলজিইডির যৌথ মূল্যায়নে হবিগঞ্জ পৌরসভা শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করায় পৌর মেয়র আলহাজ্ব জি কে গউছ স্বর্ণপদক লাভ করেন। সেই সাথে হবিগঞ্জ পৌরসভাকে ক্রেস্ট ও সনদপত্র প্রদান করা হয়।     আলহাজ্ব ব্যক্তিগত  জীবনে একজন সফল ব্যবসায়ী। হবিগঞ্জ সরকারি বৃন্দাবন কলেজ থেকে বি.এ পাশ করার পরপরই পিতার ব্যবসায় মনোনিবেশ করেন। তিনি অত্যন্ত সুনামের সাথে এ ব্যবসা পরিচালনা করছেন। আলহাজ্ব জি, কে গউছ ১৯৯৩ সনে সাবেক সংসদ সদস্য মরহুম এডভোকেট মোঃ আতিক উল্লাহর দ্বিতীয় কন্যা ফারহানা হ্যাপীর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তিনি দুই পুত্র সন্তানের জনক। তার পুত্র মোঃ মঞ্জুরুল কিবরিয়া প্রিতম ও মোঃ মাজাহারুল কিবরিয়া পুলক ঢাকার স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্কলাস্টিকায় অধ্যয়নরত।

এক নজরে হবিগঞ্জ পৌর মেয়রের জীবনবৃত্তান্ত

নাম : আলহাজ্ব জি, কে গউছজন্ম তারিখ : ২০শে এপ্রিল, ১৯৬৮
পিতার নাম : মরহুম আলহাজ্ব গোলাম মর্তুজা
শিক্ষাগত যোগ্যতা : বি.এ (পাশ)
ধর্ম : ইসলাম।

Name – Alhaj G.K Gouse

Date of Birth – 20th April, 1968

Father- Late Alhaj Golam Murtuza

Education- B. A. (Pass)

Riligious- Islam

ঠিকানা:

মতুর্জা কটেজ, শায়েস্তানগর আ/এলাকা।
ফোন : +৮৮০৮৩১-৬২৩১০ (অফিস )
জন্ম তারিখ : ২০শে এপ্রিল, ১৯৬৮
পিতার নাম : মরহুম আলহাজ্ব গোলাম মর্তুজা
শিক্ষাগত যোগ্যতা : বি.এ (পাশ)
ধর্ম : ইসলাম।

Address :

Address :

Mortuza Cottage

Shaista Nagar (R/A)

Habiganj

House No – 11/A

Flat No – B4

Road No – 50, Gulshan – 2

Dhaka

Political Background :

  • 1984, General Secretary of Chhatradal, Govt. Brindabon College
  • 1985, President of Chhatradal, Govt. Brindabon College
  • 1987, Co-convener of Chhatradal, Habiganj District
  • 1988 – 1993, President of Chhatradal, Habiganj District
  • 1990, Joint-convener of ‘Zila Sorbo Dolio Chhatra Aikka’ in Habiganj District
  • 1994, Member of Jubodol, Shaistanagar Para
  • 1995, President of Poura Jobodal
  • 1996-2002, General Secretary of ‘Habiganj Zila Jobodal’
  • 1996-2003, Member of Kendrio Jobodal (Central)
  • 2005, Secretary of ‘Kendrio Jobodal Soho-Samobay’ (Central)
  • 2005, General Secretary of Habiganj District BNP
  • 2010, Member of BNP National Executive Committee

Elected Representative :

  • 1992-1995, Member of Habiganj Chamber of Commerce & Industries
  • 2004, Elected Chairman of Habiganj Pourashava ( & Then Gold-made-list by BD Govt & ADB)
  • 2011, Elected Mayor for 2nd time of Habiganj Pourashava

Social Activities :

 

  • 1982-1985, President of ‘Shandani Sanskritee Sanshad’
  • 1984-1988, President of ‘Shaistanagar Krira Chakra’
  • 2002-2006, General Secretary of Habiganj Red Crescent Society
  • 2004-2006, Co-Chairman of ‘Zila Krira Sanstha’
  • From 2006, Editor of a daily newspaper named ‘Ajker Habiganj’

 

Design & Developed By PopularServer.Com